ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিন - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিন


ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিনই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিন। আস্-সালামু আলাইকুম। সম্মানিত পাঠক, সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এ www.allgazettes.com সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাইটটির
সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।





পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ, বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।
------------------------
------------------------

 

ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিন। 

ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেম: মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন তথ্য সংরক্ষন, বিশ্লেষণ ও যথার্থ ব্যবহার ডিজিটাল পদ্ধতিতে সংরক্ষণ ও ব্যবহার নিশ্চিতকল্পে ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেম এর উদ্ভাবন। এটি মূলত একটি ওয়েব নির্ভর ডাটাবেস, যেখানে আইডি/পাসওয়ার্ডপ্রাপ্ত বিদ্যালয় তাদের তথ্যসমূহ সংরক্ষণ ও তার ব্যবহার করতে পারবে। ওয়েবভিত্তিক হওয়ায় কোন তথ্য এন্ট্রি হওয়ার সাথে সাথে সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তাগণ এই সকল তথ্য দেখতে ও বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহনে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবহার করতে পারবেন।
ই-প্রাইমারী স্কুল সিস্টেমে লগইন করতে আপনার বিভাগ সিলেক্ট করুন। বিভাগ সিলেক্ট করলে ই-প্রাইমারী স্কুল সিস্টেম সফটওয়্যার এর লগইন পেইজটি চলে আসবে।





ছাত্রছাত্রীর প্রাথমিক তথ্য:
ছাত্র-ছাত্রীর নাম(বাংলায়): এখানে ছাত্র/ছত্রীর নাম বাংলায় লিখতে হবে।
ছাত্র-ছাত্রীর নাম(ইংরেজীতে): এখানে ছাত্র/ছত্রীর নাম ইংরেজীতে লিখতে হবে।
শ্রেনীঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অধ্যায়ণরত শ্রেণী সিলেক্ট করতে হবে।
বিভাগঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অধ্যায়ণরত বিভাগ সিলেক্ট করতে  হবে।
শিফটঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অধ্যায়ণরত শিফট সিলেক্ট করতে  হবে।
রোলঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অধ্যায়ণরত শ্রেণীতে মেধাক্রমে রোল নাম্বার লিখতে হবে।
রক্তের গ্রুপঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর রক্তের গ্রুপ সিলেক্ট করতে  হবে।
জন্ম তারিখঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর জন্ম তারিখ লিখতে হবে।
লিঙ্গঃ এখানে ছাত্র/ছত্রী ছেলে না মেয় সিলেক্ট করতে  হবে।
ধর্মঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর ধর্ম সিলেক্ট করতে হবে।
জন্মনিবন্ধন কৃত নম্বরঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর জন্মনিবন্ধন নাম্বার লিখতে হবে।
এন আইডি-এন পি আর নং: এখানে ছাত্র/ছত্রীর নাগরিক নিবন্ধন নাম্বার লিখতে হবে।
প্রাক-প্রাথমিক থেকে আগত কি না?: এখানে ছাত্র/ছত্রী প্রাক প্রাথমিক থেকে আগত কি না? (হ্যা/না) সিলেক্ট করতে হবে।
পিতার প্রাথমিক তথ্য
পিতার নামঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পিতার নাম বাংলায় লিখতে হবে।
পিতার মোবাইল নাম্বারঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পিতার মোবাইল নাম্বার ইংরাজীতে লিখতে হবে।
পিতার শিক্ষাগত যোগত্যাঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পিতার শিক্ষাগত যোগ্যতা লিখতে হবে।
পিতার জাতীয়পরিচয়পত্র নাম্বারঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পিতার জাতীয় পরিচয়পত্র নাম্বার ইংরেজীতে লিখতে হবে
পিতার পেশাঃ এখানে ছাত্র/ছাত্রীর পিতার পেশা সিলেক্ট করতে হবে।
বার্ষিক আয়ঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পিতার বাৎসরিক আয়ের পরিমাণ লিখতে হবে।
মাতার প্রাথমিক তথ্য
মাতার নামঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর মাতার নাম বাংলায় লিখতে হবে।
মাতার মোবাইল নাম্বারঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর মাতার মোবাইল নাম্বার ইংরাজীতে লিখতে হবে।
মাতার শিক্ষাগত যোগত্যাঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর মাতার শিক্ষাগত যোগ্যতা লিখতে হবে।
মাতার জাতীয়পরিচয়পত্র নাম্বারঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র নাম্বার ইংরেজীতে লিখতে হবে।
মাতার পেশাঃ এখানে ছাত্র/ছাত্রীর মাতার পেশা সিলেক্ট করতে হবে।
বার্ষিক আয়ঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর মাতার বাৎসরিক আয়ের পরিমাণ লিখতে হবে।
ক্যাচমেন্ট থেকে আগত কি না?: এখানে ছাত্র/ছত্রী ক্যাচমেন্ট থেকে আগত কি না (হ্যা/না) টিক দিতে হবে।
যদি ক্যাচমেন্ট থেকে আগত হ্যা হয়ঃ-
এলাকার নামঃ এখানে ছাত্র/ছত্রী কোন ক্যাচমেন্ট এলাকা থেকে এসেছে সেই এলাকার নাম লিখতে হবে।
ক্যাচমেন্ট বিদ্যালয়ের নামঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অন্য ক্যাচমেন্ট থেকে আগত বিদ্যালয়ের নাম সিলেক্ট করতে হবে।
ক্যাচমেন্ট বিদ্যালয়ের কোডঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর অন্য ক্যাচমেন্ট থেকে আগত বিদ্যালয়ের কোড লিখতে হবে।
পূর্বে কোন বিদ্যালয়ের অধ্যান করেছে কি?: এখানে ছাত্র/ছত্রীর অন্যকোন বিদ্যালয় অধ্যায়ন করেছে কি (হ্যা/না) টিক দিতে হবে।
যদি হ্যা হয়ঃ-
বিদ্যালয়ের নামঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পূর্বে অধ্যানকৃত বিদ্যালয়ের নাম লিখতে হবে।
বিদ্যালয়ের কোডঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পূর্বে অধ্যানকৃত বিদ্যালয়ের কোড লিখতে হবে।
শ্রেণীঃ এখানে ছাত্র/ছত্রীর পূর্বে অধ্যানকৃত বিদ্যালয়ে কোন শ্রেনীতে ছিল তা সিলেক্ট হবে।
রোল নং: এখানে ছাত্র/ছত্রীর পূর্বে অধ্যানকৃত বিদ্যালয়ে রোল নাম্বার ছিল তা লিখতে হবে। উপরের তথ্যগুলো পুরন করে পরবর্তীতে ক্লিক করলে নিচের পেজটি আসবে।

ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে শিক্ষার্থীদের তথ্য আপলোডের আগে এ লেখাটি পড়ে নিন

বিষয়টি চিত্রসহ বিস্তারিত দেখানো হয়েছে এখানে।

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে শেয়ার করে আপনার টাইমলাইনে রেখে দিন

গেজেটের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের এ ফেসবুক পেজে” লাইক দিয়ে রাখুন।




কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.