নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত- লেনদেন নিমিষেই। - সকল গেজেট এক ঠিকানায়

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত- লেনদেন নিমিষেই।

 

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত-লেনদেন নিমিষেই।

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত-লেনদেন নিমিষেই।

 

নগদ হলো বাংলাদেশ ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মোবাইল ফোন ভিত্তিক একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবা, যা একটি অর্থ আদান-প্রদানের পরিষেবা। এটি থার্ড ওয়েভ টেকনোলজি লিমিটেড কর্তৃক পরিচালিত। এটি বাংলাদেশ ডাক বিভাগের পূর্বে চালুকৃত পোস্টাল ক্যাশ কার্ড এবং ইলেকট্রনিক মানি ট্রান্সফার সিস্টেম (ইএমটিএস)-এর নতুন সংস্করণ।

নগদ অ্যাকাউন্টের একজন গ্রাহক নগদ অ্যাকাউন্ট খুলে দেশের যে কোনো স্থান থেকে নিজের মোবাইলে অর্থ জমা, উত্তোলন এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে অর্থ স্থানান্তরসহ বিভিন্ন বিল পরিশোধ করতে পারেন। এর সদর দফতর ঢাকার বনানী এলাকার কামাল আতাতুর্ক এভিনিউতে অবস্থিত।

-নগদ এর মালিকানা ডাক বিভাগ ও নগদ এর ৫১-৪৯ ভাগে বিভক্ত।

-এপ্রিল, ২০২১-এ ফোন করে কোড জানতে চেয়ে প্রতারকরা নগদ এ পাওয়া উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়।

-অক্টোবর ২০২১-এ নগদের ঋণভার ডাক বিভাগ নিতে অস্বীকৃতি জানায়।

-আগস্ট, ২০২২ এ নগদ ফাইন্যান্স প্রাথমিক অনুমোদন পায়।

-এই আর্থিক পরিষেবাটি বাংলাদেশ ডাক আইন সংশোধনী ২০১০ ধারা ৩(২)-এর অধীনে নিয়ন্ত্রিত, বিশেষত বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক বাংলাদেশ ডাক বিভাগ প্রণীত একটি স্বতন্ত্র আইন। বাংলাদেশ ডাক বিভাগ কর্তৃক ১১ অক্টোবর, ২০১৮ সালে এই ডিজিটাল আর্থিক সেবা চালু করা হয়। ২০১৯ সালের ২৬ মার্চ, বাংলাদেশের ৪৯তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের মাধ্যমে এটি কার্যক্রম শুরু করে।

 

নগদ-এর সেবাসমূহ

 

গ্রাহকরা *১৬৭ # ডায়াল করে এবং নগদ অ্যাপ ব্যবহার করে এর সেবাগুলো গ্রহণ করতে পারেন। যে কোনো নগদ অ্যাকাউন্টধারী নিজের অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত টাকা থাকা সাপেক্ষে যে কোনো সময় যে কোনো স্থান থেকে অন্য নগদ অ্যাকাউন্টধারী এজেন্ট পয়েন্ট থেকে এর সেবা উপভোগ করতে পারেন। গ্রাহক নগদ অ্যাপ ব্যবহার করে নিজেই নিজের অ্যাকাউন্ট চালু করতে পারেন।

 

আরও দেখুন-

 


 

নগদ-এর বর্তমান সেবাগুলো:

 

1.   হিসাব খোলা

2.  হিসাব এ টাকা জমা করা (Cash in-ক্যাশ ইন)

3.  একটি নগদ হিসাব থেকে অন্য নগদ হিসাব এ টাকা পাঠানো (Send money-সেন্ড মানি)

4.  হিসাব থেকে টাকা উত্তোলন (Cash Out-ক্যাশ আউট)

5.  মোবাইলে এয়ারটাইম ক্রয়/রিচার্জের সুবিধা

6.  পণ্য কেনাকাটা বা সেবার বিনিময়ে মূল্য পরিশোধ করা (Payment-পেমেন্ট)

7.  বিল পরিশোধের সুবিধা

 

নগদ একাউন্টের নিরাপত্তার স্বার্থে যা, যা করা উচিত নয়:

 

১. আপনার নগদ একাউন্ট-এর পিন কিংবা ওটিপি কখনোই কারো সাথে শেয়ার করবেন না। মনে রাখবেন, নগদ-এর কোনো কর্মকর্তা কোনো অবস্থাতেই আপনার কাছে এইসব তথ্যাবলি জানতে চাইবেন না।

 

২. প্রতারক অনেক সময় ভুয়া মেসেজ পাঠিয়ে কিংবা কল করে ভুলে টাকা চলে গেছে বলে টাকা ফেরত দিতে বলতে পারে। কেউ এই রকম কিছু বললে সাথে সাথে একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করুন।

 

৩. একাউন্ট ব্লক হয়ে যাবে বলে কেউ যদি একাউন্ট খুলে দেবে বলে আপনার কাছে নগদ এর কর্মকর্তা পরিচয়ে তথ্য চায় তাহলে কখনোই তা বিশ্বাস করবেন না।

 

৪. তথ্য হালনাগাদের অজুহাতে কেউ আপনার একাউন্ট-এর তথ্য চাইলে কখনোই তা শেয়ার করবেন না।

 

৫. বিভিন্ন ধরনের নগদ অফার যেমন ক্যাশ ইন-এ বোনাস, ডাবল ইনকাম, ক্যাশ আউট চার্জ কম কিংবা অন্য যেকোনো অফার এর প্রলোভন দেখিয়ে কেউ ফোন দিয়ে আপনার একাউন্ট-এর ব্যক্তিগত কোনো তথ্য চাইলে কখনোই তা শেয়ার করবেন না।

 

৬. লটারি কিংবা অন্য কোনো অফারের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারক চক্র আপনার টাকা হাতিয়ে নিতে পারে। তাই সচেতন থাকুন।

 

তথ্য সূত্র: bn.wikipedia.org

 

পোস্টের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ‘‘Facebook Page” লাইক দিয়ে রাখুন

 

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে নিচের ফেসবুক, টুইটার বা গুগল প্লাসে

শেয়ার করে আপনার টাইমলাইনে রেখে দিন। এতক্ষণ সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.