প্রাক-প্রাথমিক শিশুদের জন্য উপকরণসমূহের বিশাল তালিকা - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

প্রাক-প্রাথমিক শিশুদের জন্য উপকরণসমূহের বিশাল তালিকা


প্রাক-প্রাথমিক শিশুদের জন্য উপকরণসমূহের বিশাল তালিকাপ্রাক-প্রাথমিক শিশুদের জন্য উপকরণসমূহের বিশাল তালিকা। সম্মানীত ভিজিটর, সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি। অনুগ্রহপূর্বক, পোস্টটি শেষ পর্যন্ত দেখুন।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এই অলগেজেটস ডট কম সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের ফেসবুক পেজে” লাইক দিয়ে সাইটটির
সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।





পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ, বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।
--------------------------------------------------
আরও দেখুন-

--------------------------------------------------
প্রাক-প্রাথমিক শিশুদের জন্য উপকরণসমূহের বিশাল তালিকা।
আজকের পোস্টে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির ৪টি কোর্নারের উপকরণ নিয়ে বেশি আলোচনা থাকলেও পোস্টের শেষের দিকে সাধারনভাবে কিছু গুরূত্বপূর্ণ উপকরনের তালিকা প্রদান করা হয়েছে।






৪টি কোর্নার ও উপকরণের তালিকা:


ইচ্ছেমত খেলার সময় শিক্ষক শিশুদেরকে কোন ধরনের নির্দেশনা না দিয়ে ঘুরে ঘুরে শিশুদের কাজ দেখবেন। তবে খেলার সময় শিশুদেরকে একই উপকরণ বিভিন্নভাবে ব্যবহার করার জন্য অনির্দেশনামুলকভাবে এবং মুক্ত প্রশ্ন করে উৎসাহিত করবেন। যেমন: কোনো শিশু বোতাম দিয়ে খেললে, তাকে জিজ্ঞাসা করবেন, এখানে কী কী রং আছে, কার হাতে বোতাম বেশি রয়েছে, শিশুদের বোতাম গুণে দেখাতে বলবেন। একইভাবে পানি বা বালির কর্নারে শিশুরা খেললে, তাদের কাছে জানতে চান, বড় পানির বোতলটি
ভরতে কয় কাপ পানি লাগবে। এটা তাদের পরীক্ষা করে দেখাতে বলবেন। কোনো শিশু কিছু আঁকলে তার কাছে জানতে চাইতে পারেন, কী আঁকছো, তোমার আঁকা ঘরের মধ্যে
কে কে আছে, তারা কী করছে, ঘরের মধ্যে তুমি থাকলে কী করতে? কোনো শিশু ব্লক দিয়ে টাওয়ার বানালে তাকে জিজ্ঞাসা করতে পারেন, তোমার টাওয়ারটা এতো লম্বা হওয়ার পরও পড়ে যাচ্ছে না কেন? ব্লক দিয়ে তুমি আর কী কী বানাতে পার?

 প্রাক-প্রাথমিক পাঠ্যসূচিতে খেলা একটি দৈনন্দিন কাজ। ইচ্ছেমতো খেলার সময় শিশুরা ৪টি ভাগে ভাগ হয়ে ৪ কর্নারে সাজিয়ে রাখা উপকরণ নিয়ে ঘুরে ঘুরে ৪টি কর্নারেই খেলবে। শিক্ষক শিশুদেরকে শুধু ৪টি কর্নারের নাম বলবেন। শিশুরা তাদের পছন্দমতো কর্নারে গিয়ে সেখানে রাখা উপকরণ নিয়ে তাদের ইচেছমতো খেলবে। তবে কেউ ইচ্ছে করলে শ্রেণিকক্ষের ভিতরে যে কোন জায়গায় খেলতে পারবে। তাছাড়া খেলার সময় শিশুরা এক কর্নারের উপকরণ অন্য কর্নারে নিয়ে যেতেও পারবে। শিশুরা যাতে এককভাবে, জোড়ায় জোড়ায় বা ছোট দলে তাদের পছন্দ অনুযায়ী মুক্তভাবে খেলতে পারে সেটাই ইচ্ছেমতো খেলার মূখ্য বিষয়। ৪টি কর্নার বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে পরিকল্পিতভাবে সাজিয়ে রাখা হলেও শিশুরা তাদের ইচেছমতো যে কোন উপকরণ নিয়ে খেলতে পারবে এবং তাদের পছন্দমতো কিছু তৈরি বা গঠন করতে পারবে। এ সময় শিক্ষক তাদেরকে কোন ধরনের নির্দেশনা না দিয়ে ঘুরে ঘুরে শিশুদের কাজ দেখবেন, প্রশংসা ও উৎসাহ প্রদান করবেন। এই বিষয়গুলোকে বিবেচনায় রেখেই ইচ্ছেমতো খেলা পরিচালনা করতে হবে ।



কল্পনার কর্নার:

১. এলুমিনিয়াম/প্লাস্টিকের তৈরি রান্না করার সামগ্রী (হাঁড়ি-পাতিল, কড়াই, চুলা) -২ সেট 
২. এলুমিনিয়াম/প্লাস্টিকের তৈরি খাবার পরিবেশন করার সামগ্রী (৬টি থালা, ৬টি বাটি, ৬টি চামচ, ৬টি গ্লাস)।
৩. মাটি/কাঠ/কাগজের তৈরি আসবাবপত্র (খাট, চেয়ার, টেবিল, আলনা) -২ সেট। 
৪. প্লাস্টিক/মাটির তৈরি টেলিফোন -২টি, মোবাইল সেট -২টি,
৫. কাপড়ের তৈরি পুতুল ৪টি (২টি বড়, ২টি ছোট)
৬. কাপড়ের তৈরি টেনিস বল (৪টি)
৭. মাটির তৈরি বিভিন্ন ফল (আম, জাম, কাঠাল, লিচু, কলা, আপেল, পেয়ারা, কমলা, নারিকেল, তাল) 
৮. প্লাস্টিক/মাটির তৈরি বিভিন্ন খেলনা (টেলিভিশন, গাড়ি, পশু-পাখি)
৯. মাটির তৈরি বিভিন্ন মিষ্টি সামগ্রী 
১০. কাগজের তৈরি রঙিন ফুল 
১১. পাট/ খড়ের তৈরি বিভিন্ন খেলনা (পুতুল, শিকা, থলে)
১২. বাঁশ/নারকেল পাতা দিয়ে তৈরি ঝুড়ি (৪টি)।
১৩. কাঠ/কাগজ দিয়ে খেলনা বাদ্যযন্ত্র 
১৪. প্লাস্টিক/মাটির তৈরি পশুপাখি (২ সেট) 
১৫. প্লাস্টিক/মাটির তৈরি মাছ (১০টি) 
১৬. তেঁতুল/সিমের বিচি (১ বৈয়াম)
১৭. বাঁশে/পাটের কাঠি (৬ ইঞ্চি লম্বা- ১০০টি)
১৮. প্লাস্টিক/কাঠের তৈরি গাড়ি-ট্রাক (৪টি |
১৯. প্লাস্টিক/কাঠ/কাগজ/মাটির তৈরি নৌকা - ৪টি
২০. নারকেল পাতা/ প্লাস্টিকের তৈরি হাত ঘড়ি - ৪টি
২১. লাফানোর জন্য দড়ি/স্কিপিং রোপ-৩টি 
২২. বাঁশের তৈরি বাঁশি

ব্লক ও নাড়াচাড়ার কর্নার

১. কাঠ/ প্লাস্টিকের তৈরি বিভিন্ন আকৃতির ব্লক: 
(ক) বর্গাকার বিভিন্ন আকারের -৩০টি
(খ) আয়তাকার ৪০টি
(গ) ত্রিভুজাকার -২০ টি
(ঘ) কলাম -২০ টি
(ঙ) কিউব - ৪ রঙের ৪০০
(চ) প্যাটার্ন ব্লক – ৬ ধরনের ৬ রঙের ৬০০ (ব্লক দিয়ে মজার খেলা বইসহ) 
২. পাজেল:
(ক)৮ টুকরা পাজেল – ৬টি 
(খ) ১২ টুকরা পাজেল - ৬টি
(গ) ১৬ টুকরা পাজেল -৬টি 
৩. বীন ব্যাগ - ৫টি 
৪. থ্রেডিংটয়েজ (বিভিন্ন রঙের ৪০ পিছ)-৪টি
৫. প্লাস্টিক/মাটির তৈরি পশু-পাখির সেট -৪সেট
৬. বোতাম-১বৈয়াম 
৭. লেইসিং বোর্ড (তিনকোনা, চারকোনা, আয়তাকার, তারা) - ৪টি।
৮. ডমিনো (ডট ও সংখ্যা) - ৪ সেট
৯. বিভিন্ন রঙের পাথর ও বিচি

বালি ও পানির কর্নার

১. প্লাস্টিকের তৈরি গামলা (২৪ লিটার)- ২টি
২. পানি - আধা গামলা
৩. বালি - আধা গামলা 
৪. প্লাস্টিকের তৈরি বিভিন্ন রঙের বাটি - ৬টি
৫. প্লাটিকের তৈরি মাছ - ১০টি 
৬. প্লাস্টিকের তৈরি বিভিন্ন আকারের বোতল – ৬টি
৭. প্লাস্টিকের তৈরি নৌকা - ৪টি 
৮. প্লাস্টিকের তৈরি ফানেল - ৪টি
৯. প্লাস্টিকের তৈরি ছাঁকনি - ২টি 
১০. বিভিন্ন রঙের ছোট ছোট পাথর ( ৩০-৪০টি)
১১. পেঁপে গাছের ডাটা
১২. প্লাস্টিকের তৈরি পানি মাপার কৌটা 
১৩. ভাসে এবং ডোবে এমন প্রাকৃতিক উপকরণ






বই ও আঁকার কর্নার

ক. গল্পের বই
(১) অপুর বিড়াল
(২) কোথায় আমার মা
(৩) টিং টং এর কান্ড 
(৪) ফুল ফোটার আনন্দ
(৫) বেড়ানোর মজা 
(৬) শান্ত নামের লাল পোকা
(৭) চাচা বাজারে যান। 
(৮) বর্গ রাজা ত্রিভুজ রানি
(৯) ওরা বেড়াতে যায়। 
(১০) মিতু একদিন কুসুমপুরে
         এ ধরনের আরও অনেক ছবির মাধ্যমে গল্পের বই রাখা যেতে পারে।

খ. আঁকার সামগ্রী
(১) ক্রেয়ন (বিভিন্ন রঙের) - ১০ সেট 
(২) পেন্সিল - ৩০ টি
(৩) কাগজ - প্রয়োজন অনুযায়ী
গ. অন্যান্য উপকরণ।
(১) ছবি আঁকার বই - ৬টি 
(২) বর্ণের কার্ড - ১ সেট
(৩) সংখ্যার কার্ড - ১ সেট
(৪) মোটা কাগজের তৈরি মুখোশ মুকুট এবং
(৫) মুখোশ (৪টি)

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে ১৭ জানুয়ারি, ২০১৩ খ্রি: তারিখে ইস্যুকৃত একটি পত্রের ২ নং ক্রমিকে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির জন্য ন্যূনতম ৩০ জন শিক্ষার্থীর বিবেচনায় যে সমস্ত শিখন-শেখানো সামগ্রী ক্রয়/তৈরি করতে বলা হয়েছিল তার তালিকা নিম্নরূপ: 

[উক্ত পত্রটি দেখতে ক্লিক করুন-এখানে।]


শিখন-শেখানো সামগ্রীর তালিকা:

১. ম্যাট/মাদুর (শ্রেণিকক্ষের আয়তন অনুষাৰ্থী)।
২ অয়েল বা মোম পেন্সিল বক্স (পেস্টেল)/ক্রেয়ন 
৩. পেন্সিল।
৪. ইরেজার 
৫. পেন্সিল কাটার
৬. সাদা কাগজ
৭. টেনিস বল
৮. ছোট সাইজের ফুটবল 
৯. প্লাস্টিকের বর্ণ ও মডেল (স্বরবর্ণ)
১০. প্লাস্টিকের বর্ণ ও মডেল (ব্যঞ্জনবর্ণ)
১১. প্লাস্টিকের জীবজন্তু ও পশুপাখির মডেল
১২. স্কিপিং দড়ি
১৩. লুডু
১৪. রেজিস্টার খাতা।

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন, প্লিজ।
গেজেটের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের এ ফেসবুক পেজে” লাইক দিয়ে রাখুন।




কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.