ফেরেস্তা সৃষ্টির ইতিবৃত্ত: - সকল গেজেট এক ঠিকানায়

ফেরেস্তা সৃষ্টির ইতিবৃত্ত:


চতুর্থ আসমানে একটি নহর আছে যাকে 'হায়াতের নহর বলা হয়। জিব্রাইল আলাইহিস সালাম এতে প্রত্যেক দিবসে একবার ডুব দিয়ে ডানা ঝাড়েন। যা থেকে সত্তর হাজার ফোটা ঝরে পড়ে। আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেক ফোটা থেকে একেকটি ফেরেস্তা সৃষ্টি করেন। তারা আদিষ্ট হয় বায়তুল মামুরে গিয়ে নামায পড়তে। যখন নামায পড়ে বেরিয়ে আসে অতঃপর তাতে আর কখনো যায় না। তাতে একজনকে তাদের নেতা বানানোর নির্দেশ দেয়া হয় যেন আসমানে তাদেরকে নিয়ে একটি স্থানে দন্ডায়মান হয়। কিয়ামত অবধি তারা আল্লাহর তাসবীহ পাঠ করতে থাকবেন।আস্-সালামু আলাইকুম। সম্মানিত পাঠক, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি-আমি মো: আবু বকর সিদ্দিক।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এ www.allgazettes.com সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের
“ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে সাইটটির সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।




পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, ডিজিটাল কন্টেন্টসমূহ, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ,  বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।





চতুর্থ আসমানে একটি নহর আছে যাকে 'হায়াতের নহর বলা হয়। জিব্রাইল আলাইহিস সালাম এতে প্রত্যেক দিবসে একবার ডুব দিয়ে ডানা ঝাড়েন। যা থেকে সত্তর হাজার ফোটা ঝরে পড়ে। আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেক ফোটা থেকে একেকটি ফেরেস্তা সৃষ্টি করেন। তারা আদিষ্ট হয় বায়তুল মামুরে গিয়ে নামায পড়তে। যখন নামায পড়ে বেরিয়ে আসে অতঃপর তাতে আর কখনো যায় না। তাতে একজনকে তাদের নেতা বানানোর নির্দেশ দেয়া হয় যেন আসমানে তাদেরকে নিয়ে একটি স্থানে দন্ডায়মান হয়। কিয়ামত অবধি তারা আল্লাহর তাসবীহ পাঠ করতে থাকবেন।
ইবনে মুনযিরও এ ধরণের বর্ণনা উল্লেখ করেন, কিন্তু তাতে নহরের উল্লেখ ছিলো না। তিনি বিশুদ্ধ পদ্ধতিতে হযরত আবু হুরায়রার সূত্রে ব্যক্ত করেন। | কিন্তু ইবনে হাজর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বলেছেন এটা হাদীসে মাওকুফ| এ দ্বারা তিনি প্রমাণ প্রতিষ্ঠা করেছেন। সুতরাং বুঝা গেল, হাদীসে মাওকুফ মারফুর ন্যায়।
সম্মানীত পাঠক, এমনই জ্ঞানগর্ভ আলোচনা সমৃদ্ধ “ফেরেস্তা সৃষ্টির ইতিবৃত্ত” নামক ধর্মীয় বইটির পিডিএফ কপি সংগ্রহে রাখতে পারেন এখান থেকে।
              আর্টিকেলটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন, প্লিজ।
গেজেটের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন।



কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.