বার মাসের নফল ইবাদত সম্পর্কে জানুন: - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

বার মাসের নফল ইবাদত সম্পর্কে জানুন:


আস্-সালামু আলাইকুম। সম্মানিত পাঠক, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি-আমি মো: আবু বকর সিদ্দিক।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এ www.allgazettes.com সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের
“ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে সাইটটির সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।




পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, ডিজিটাল কন্টেন্টসমূহ, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ,  বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।




ইবাদতের পরিপূর্ণ সারবত্তা হল- ফরয নামাযগুলি আদায় করা, ফরয রোযা পালন করা, যাকাত প্রদান করা এবং হজ্জ-ওমরা পালন করা। এই ফরয ইবাদতসমূহ সঠিকভাবে আদায় করার পর যদি কোন ব্যক্তি অতিরিক্ত আল্লাহর ইবাদতে রত হতে চায়, তাহলে তাকে নফল নামায, নফল রোযা, আল্লাহর জিকির হিসাবে অজীফা পড়া এবং রাত-দিন বেশী বেশী নফল ইবাদত ইত্যাদি করতে হবে। নফল ইবাদতের জন্য হুজুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের মৌলিক নফল ইবাদত সমূহ আমাদের পথের দিশা । কেননা রাসূল আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজেও ফরয ইবাদতের সাথে অধিক হারে নফল। ইবাদত আদায় করতেন। রাত-দিন কয়েক রকমের নফল নামায পড়তেন। অতঃপর সপ্তাহজুড়ে বিভিন্ন সময়ে নফল ইবাদত এবং আল্লাহর যিকির বেশী। পরিমাণ করতেন। আর বিভিন্ন দিবসে নফল রোযা রাখতেন। হুজুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের এ সমস্ত কার্যসূচী আমাদের সামনে নফল নামায, নফল রোযা এবং অজীফা হিসাবে বিদ্যমান আছে। সুতরাং যে ব্যক্তি বার মাসে অধিকহারে নফল ইবাদত করতে চায়, তার জন্য উচিত হল- হুজুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সুন্নাত-ত্বরিকাকে বেছে নেয়া। আর সে সুন্নাতকে অনুসরণ করত: নফল নামায, নফল রোযা, কুরআন তেলাওয়াত এবং অন্যান্য অজীফা আদায় করা।
সম্মানীত পাঠক, বার মাসের নফল ইবাদত সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে উক্ত ধর্মীয় বইটির পিডিএফ কপি সংগ্রহে রাখতে পারেন এখান থেকে।
              আর্টিকেলটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন, প্লিজ।
গেজেটের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন।



কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.