ভূমি জরিপ চলাকালে ভূমি মালিকরা যা, যা করবেন || সকল গেজেট এক ঠিকানায় - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

ভূমি জরিপ চলাকালে ভূমি মালিকরা যা, যা করবেন || সকল গেজেট এক ঠিকানায়


ভূমি জরিপ চলাকালে ভূমি মালিকরা যা, যা করবেন।

ভূমি জরিপ চলাকালে ভূমি মালিকরা যা, যা করবেন || সকল গেজেট এক ঠিকানায়

ভূমি জরিপ চলাকালে ভূমি মালিকরা যা, যা করবেন।


১. ভূমি বা জমি জরিপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। 

২. জরিপের সময় জমির মালিকানার উপর ভিত্তি করে জমির খতিয়ান বা স্বত্ব লিপি তৈরি করা হয়।


৩. যে কোন এলাকায় জমি জরিপ শুরু হওয়ার আগে ভূমি প্রশাসন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সেই এলাকার জনগণকে অবহিত করেন। অনেক সময় ভুমি প্রশাসন কর্তৃপক্ষ প্রয়োজন মতে মাইকিং করে জরিপের ব্যাপারে জনগণকে নিশ্চিত করেন। 

৪. পূর্ব ঘোষিত নির্দিষ্ট তারিখ অনুযায়ী ভূমি প্রশাসনের কর্মী তথা সার্ভে কর্মকর্তা বা আমিনগন জমির মালিকের সহায়তায় জরিপের কাজ শুরু করেন।






৫. এক্ষেত্রে জমির মালিকগণের যে কাজটি পূর্বেই করে রাখতে হবে তাহলো তাদের নিজস্ব জমির সীমানা নির্ধারণ করে রাখা, এতে জমি জরিপের সময় নিজে অথবা জমির মালিকের বিশ্বস্ত প্রতিনিধি জরিপ আমিনদেরকে জরিপ কাজে সহায়তা করবেন।

৬. সংশ্লিষ্ট জমি অর্থাত্ যে জমির জরিপ কাজ শুরু হবে সেই জমির পূর্বের রেকর্ডের পর্চা বা দলিল দস্তাবেজ নিয়ে মালিক বা তার অভিজ্ঞ এবং বিশ্বস্ত প্রতিনিধি মাঠে উপস্থিত থেকে আমিনের নিকট যথাযথভাবে উপস্থাপন করে নাম রেকর্ড সম্পাদন করতে হবে। 

৭. যদি কোন পুরাতন রেকর্ডের মালিক মারা গিয়ে থাকেন তাহলে তার ওয়ারিশগণ তাদের নাম ঠিকানা বর্ণনা করে নতুন করে নাম অন্তর্ভূক্তি করতে আমিনকে অবহিত করতে হবে। 
"১৯৫৫ সালের প্রজাস্বত্ব বিধি মতে"

ফেইসবুক থেকে সংগৃহীত।

লিঙ্ক:



--------------------------------------
আরও দেখুন-
------------------------------------------------------

পোস্টের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুকপেজে” লাইক দিয়ে রাখুন।

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে নিচের ফেসবুক, টুইটার বা গুগল প্লাসে
শেয়ার করে আপনার টাইমলাইনে রেখে দিন। এতক্ষণ সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।




কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.