জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রণীত কর্মপরিকল্পনায় যা যা রয়েছে - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রণীত কর্মপরিকল্পনায় যা যা রয়েছে

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রণীত কর্মপরিকল্পনায় যা যা রয়েছেজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রণীত কর্মপরিকল্পনায় যা যা রয়েছে। সম্মানীত ভিজিটর, সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি। অনুগ্রহপূর্বক, পোস্টটি শেষ পর্যন্ত দেখুন।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এই অলগেজেটস ডট কম সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের
ফেসবুক পেজে” লাইক দিয়ে সাইটটির সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।





পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ, বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।
--------------------------------------------------
আরও দেখুন-
--------------------------------------------------


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রণীত কর্মপরিকল্পনায় যা যা রয়েছে।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সমন্বয় ও মনিটরিং শাখা থেকে জানানো হয় যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন সংক্রান্ত উপ-কমিটির একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতির অনুমতিক্রমে অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন-১) সভাকে অবহিত করেন যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় পর্যায়ে গৃহীত কর্মসূচির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে এ মন্ত্রণালয়ের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের নির্দেশনা রয়েছে। সেলক্ষ্যে এ মন্ত্রণালয়ের সচিব মহোদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গত ১৩ মে ২০১৯ তারিখের সভায় একটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়। সভাপতি উপস্থিত সকলকে এ বিষয়ে মতামত প্রদানের জন্য আহ্বান জানান। সভায় কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

 বিস্তারিত আলোচনান্তে নিম্নরূপ কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়:


(ক) সম্ভাব্য ১৯ মার্চ, ২০২০ তারিখ জাঁকজমকপূর্ণভাবে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার আয়োজন করা হবে।


(খ) এপ্রিল, ২০২০ মাসে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মাধ্যমে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ পালন করা হবে।


(গ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ আন্তজার্তিক সাক্ষরতা দিবস যথাযোগ্য মর্দায় উদযাপন করা হবে।


(ঘ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ১ জানুয়ারি, ২০২০ এবং ১ জানুয়ারি, ২০২১ বই বিতরণ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে।


(ঙ) ‘মুজিব বর্ষ’ ব্যাপী প্রাথমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে গৃহিত যুগান্তকারী ও ঐতিহাসিক কর্মসূচি এবং অর্জনসমুহের আলোকে উপজেলা, জেলা, বিভাগ এবং জাতীয় পর্যায়ে সেমিনার/সিম্পোজিয়াম আয়োজন করা হবে।


(চ) ‘মুজিব বর্ষ’ ব্যাপী উপজেলা, জেলা, বিভাগ, পর্যায়ে মা-সমাবেশ আয়োজন এবং ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে অনুষ্ঠেয় সমাবেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সানুগ্রহ অংশগ্রহণের বিষয়টিতে সদয় অনুমোদন গ্রহণের ব্যবস্থা নেয়া হবে।


(ছ) ‘মুজিব বর্ষ’ ব্যাপী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্থাপিত “বঙ্গবন্ধু বুক কর্ণার’ কার্যকর করা হবে এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন আদর্শের উপর শিশু কিশোরদের উপযোগী সিআরআইসহ অন্যান্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের প্রকাশিত বই সংরক্ষণ ও ব্যবহার নিশ্চিত করার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।





(জ) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে শহীদ মিনার স্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


ঝ) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল'-কে সম্পৃক্ত করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ইত্যাদি আয়োজন করা হবে।


(ঞ) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে স্বাধীনতার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ও যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের পর প্রাথমিক শিক্ষায় অর্জনসমূহের উপর ডকুমেন্টরি তৈরি করে দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


(ট) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক সমন্বয় সাধন করে র‌্যালীর আয়োজন করা হবে এবং মন্ত্রণালয় কর্তৃক জাতীয় পর্যায়ে র‌্যালীর আয়োজন করা হবে।


(ঠ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে স্বতন্ত্র পেইজ তৈরি করা হবে।


(ড) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে ২১ লক্ষ নিরক্ষরকে সাক্ষরতা দান করা হবে।


(ঢ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ৩য় ও ৫ম শ্রেণির সকল শিক্ষার্থীর বাংলা পঠন দক্ষতা শতভাগে উন্নীত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


(ণ) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক বিস্তারিতভাবে বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে।


(ত) ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষার অর্জনসমূহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরতে ঢাকায় একটি আন্তজার্তিক সেমিনার আয়োজন করা হবে।

পোস্টের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে  লাইক দিয়ে রাখুন

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে নিচের ফেসবুক, টুইটার বা গুগল প্লাসে
শেয়ার করে আপনার টাইমলাইনে রেখে দিন। এতক্ষণ সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।




কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.