আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে - সকল গেজেট এক ঠিকানায় || All gazettes are in one site.

আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে

আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে।আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র সমৃদ্ধ এ বাংলা ব্লগ সাইটে সম্মানীত পাঠকদের স্বাগত জানাচ্ছি।
প্রিয় পাঠক, আপনি যদি আমার এ www.allgazettes.com সাইটে নতুন এসে থাকেন; তাহলে, সাইটে প্রতিনিয়ত প্রকাশিত নতুন পোষ্টের আপডেট পেতে-প্লিজ, সাইটের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাইটটির
সঙ্গেই থাকুন। আর যদি ইতোমধ্যে আপনি “ফেজবুক পেজে” লাইক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনাকে আবারও স্বাগত জানাচ্ছি বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রজ্ঞাপন ও চিঠি-পত্র একত্রে, একসঙ্গে পাবার এ পাঠকপ্রিয় বাংলাদেশী বাংলা ব্লগে। আশা করি, পরবর্তীতে আবারও এসে ধন্য করবেন “সকল গেজেট এক ঠিকানায়” শিরোনামের এ বাংলা ব্লগে।





পাঠক, আপনাদের সকলের চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে এ ব্লগে আয়োজন করেছি-প্রাথমিক শিক্ষার অফিস আদেশ ও পত্র, প্রাথমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন, মাধ্যমিক শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, উচ্চ শিক্ষার প্রজ্ঞাপন ও পত্র, শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, শিক্ষকদের পেশাগত প্রশিক্ষণ ও ম্যানুয়াল, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রজ্ঞাপন ও পত্র, পাঠ্য বইয়ের ই-সংষ্করণ, ধর্মীয় ই-বুকসমূহ, আইন ও বিধিমালার ই-বুকসমূহ, জাতীয় পরিচয় পত্র বিষয়ক প্রজ্ঞাপন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের প্রজ্ঞাপন ও পত্র, জাতীয় বেতন স্কেলসমূহ, বিভিন্ন আর্থিক সুবিধার প্রজ্ঞাপন ও পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সরকারি-বেসরকারি গুরূত্বপূর্ণ গেজেট, পরিপত্র ও পত্রাদি। এবার আসা যাক, আজকের পোষ্টের কথায়।
------------------------
------------------------
আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখে জারিকৃত এক পত্রে জানানো হয় যে, প্রাথমিক শিক্ষাকে সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্ব প্রথম ১৯৭৩ সালে ৩৬,১৬৫টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার প্রেক্ষিতে ২৬,১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ও উক্ত বিদ্যালয়গুলোতে কর্মরত শিক্ষকদের জাতীয়করণ করা হয়। বর্তমানে সারাদেশে জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়সহ সর্বমোট ৬৫,৫৯৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা এর ৪ নম্বর লক্ষ্য অর্জনে সরকার প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত ও একীভূত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, নব জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়সমূহে শুধুমাত্র আত্মীকরণকৃত শিক্ষকদের দ্বারা পাঠদান কার্যক্রম চলমান থাকায় উক্ত বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষার মান কাঙ্খিত মাত্রায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। বাংলাদেশের প্রতিটি বিদ্যালয়ে মানসম্মত ও একীভূত শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পুরাতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা জরুরি বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। পুরাতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সংমিশ্রণ ঘটালে সারাদেশে প্রতিটি বিদ্যালয়ে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভবপর হবে।





এমতাবস্থায়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত শিক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে পুরাতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে নিকটস্থ/পার্শ্ববর্তী নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এবং নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে নিকটস্থ/পার্শ্ববর্তী পুরাতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করে বদলিকৃত শিক্ষকগণের তালিকাসহ প্রতিবেদন আগামী ১৫ (পনেরো) কার্যদিবসের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।
পত্রটি নিম্নরূপ-
আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে পুরাতন ও নব জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় সাধন হচ্ছে।
আর্টিকেলটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন, প্লিজ।
গেজেটের নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন।





কোন মন্তব্য নেই

pollux থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.